হোমনা বাসীর জন্য আবারো লকডাউন হতে পারে

হোমনা বাসীর জন্য আবারো লকডাউন হতে পারে

প্রকাশিত: ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

এম.এস ফরিদ,কুমিল্লা(হোমনা) প্রতিনিধিঃ

হোমনা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা তাপ্তি চাকমা করোনার সূচনা লগ্ন থেকেই কোরোনাকালীন করণীয় ও নিয়ম শৃঙ্খলা মেনে চলার উদাত্ত আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন, আপনার পরিবারকে সুস্থ রাখুন। ভাইরাস যেনো সর্বত্র না ছড়াতে পারে সেজন্য তিনি মাঠ পর্যায়েও কাজ করে যাচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, গতকাল সোমবার পর্যন্ত হোমনাতে মোট সনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৪২ জন, যা খুবই এলার্মিং।করোনা ভাইরাস সৃষ্ট পরিস্থিতিতে অনেকেই প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন। আপনাদের অবগতির জন্য বলতে চাই, প্রশাসনের দৃষ্টি শুরু থেকেই সজাগ ছিল, আছে, থাকবে যা আপনারা সকলেই জানেন। সম্ভব হলে জনগণের দৃষ্টি আকর্ষণ করুন, যাদের জন্য আমাদের সব পরিশ্রম। প্রতিদিনই অভিযান পরিচালিত হয়, ৮০% মানুষের মুখে মাস্ক থাকে না। প্রশাসন জরিমানা করে, কিন্তু তাতে লাভ কি? মানুষকে জরিমানা করে কি করোনা ঠেকানো যায়? মাস্ক পকেটে রেখে নিশ্চিন্তে ঘুরে বেড়ানো, শপিং করার সময় কি করোনা কারো মনে থাকেনা?

ইতোমধ্যে ডাক্তারসহ আমাদের কিছু সরকারি কর্মচারীবৃন্দ আক্রান্ত হয়েছে।প্রশাসন যদি নিজে নিরাপদ না থাকতে পারে আপনাদের নিরাপদ রাখবে কি করে? মনে রাখবেন, প্রশাসনের অভিযান সরকারের কোষাগারে কিছু অর্থ যোগান দিতে পারবে (যেটা প্রশাসনের উদ্দেশ্য নয়) কিন্তু আপনাকে করোনা থেকে রক্ষা করতে পারবে না। সকলের নিরাপত্তা আপনার ব্যক্তিগত সচেতনতার উপর নির্ভর করছে।

জেলা প্রশাসন এর নির্দেশনা অনুসারে আমরা খুব শীঘ্রই আরো কঠোর অবস্থানে যাচ্ছি( প্রয়োজনে Lockdown এর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে)।

এছাড়াও সাময়িক ভাবে কিছু বিধি-নিষেধ জারি করেন-

১.আজ থেকে ওষুধের দোকান ব্যতীত বিকাল ৪.০০ টার পর কোন দোকান খোলা থাকলেই নিশ্চিত জরিমানা করা হবে।স্বাস্থ্য বিধি না মানলে জরিমানা করা হবে।
২.সিএনজি, অটোরিকশার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা যাবেনা।
৩. বাজারসমূহ পূর্বের উন্মুক্ত স্থানে থাকবে।