বদরখালীতে ১৪৪ ধারা ভঙ্গকরে অবৈধভাবে স্থাপনা নিমার্ণের অভিযোগ

প্রকাশিত: ১:২০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০

চকরিয়া  প্রতিনিধি::

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বদরখালীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের লীজ প্রাপ্ত জায়গা জবর দখলের অভিযোগ উঠেছে। প্রাপ্ততথ্যে অভিযোগসুত্রে জানাগেছে বদরখালীর পানি উন্নয়ন বোর্ডের মোট জায়গার পরিমাণ ১৯০ শতকের মধ্যে প্রায় ১৫০ শতক জমির পরিমাণ জায়গা বাদী নুর মোহাম্মদের বড়ভাই মোহাম্মদ খায়রুল বশরের লিজ প্রাপ্ত হওয়া খতিয়ান ভুক্ত জায়গায়। সম্প্রতি প্রতিপক্ষ জবরদখলকারী গংয়ের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট অাদালতে কক্সবাজার কতৃক এম অার মামলা নং ৬৪২/২০২০ ইং ১৪৪ ধারা ভঙ্গকরে নিষেধাক্ষা চলমান জারি থাকা সত্বেও এ অবস্থার প্রেক্ষিতে প্রতিপক্ষ একই এলাকার মৃত উলামিয়ার ছেলে মোহাম্মদ হোছন প্রকাশ ফতিয়ালী গংয়ের নেতৃত্বে এম অার কোর্টের অাদালতের ১৪৪ ধারা নিষেধাক্ষা অাইন ভঙ্গকরে অবৈধভাবে লিজপ্রাপ্ত ওই ১৫০ শতক জায়গার উপর প্রতিপক্ষ মোহাম্মদ হোছন প্রকাশ ফতিয়ালী গংয়ের যোগসুত্রে ভুমিদস্যু জবরদখলকারী গং পক্ষে গিয়ে সম্প্রতি প্রভাবশালী মহল বিরোধপুর্ণ ওই জমিতে অারেক তৃতীয় পক্ষ অাবির্ভাব হয়ে একযোগে অবৈধভাবে জবর দখল করেন,চকরিয়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের চেয়ারম্যান পাড়া এলাকার অাবুতাহেরের ছেলে মুজিবুর রহমানের সার্বিক সহযোগিতায় ওই বিরোধপুর্ণ জমিতে একযোগে প্রভাব খাটিয়ে জবরদখলে মেতেউঠে। বর্তমানে অবৈধ বেঅাইনিভাবে স্থাপনা নিমার্ণের জন্য পাথর, কংন্কর,বালি,লোহার রড, সিমেট সহ প্রভৃতি সরঞ্জামদি এনে মালামাল স্তুপ করে রাখেন। এনিয়ে নিরহ অসহায় বাদীর পরিবারকে বিভিন্ন ভাবে প্রতিনিয়ত অব্যহত হুমকি প্রদর্শন করে চলেছে। অসহায় প্রকৃত জমির মালিক বাদী নুর মোহাম্মদ পানি উন্নয়ন বোর্ড কতৃক লিজ ও খতিয়ান ভুক্ত জমি উদ্ধার পুর্বক সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। ##