ত্রিমুখী সমস্যায় জর্জরিত ঈদগাঁও বাজারবাসী

প্রকাশিত: ২:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০২০

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁওঃ

কক্সবাজার সদরের ব্যস্তবহুল বাণিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারে একদিকে সড়ক-উপসড়ক সংকীর্ণতা,অন্যদিকে মালবাহী ট্রাকে চলাচল সড়ক দখল,আরেকদিকে ব্যবসা প্রতিষ্টানের সামনে উপ ভাড়া দিয়ে ফায়দা। ত্রিমুখী সমস্যায় জর্জরিত বাজারবাসী। তীব্র যান জট যেন কোনভাবেই কমছেনা। যত্রতত্র অটোরিকসা,টমটম সিএনজিসহ নানা যান চলাচলে কোন নিয়মনীতি না থাকায় প্রতি নিয়ত যানজটের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে বাজারের ব্যবসায়ী, শিক্ষার্থী,পথচারীসহ রোগীদেরকে। ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেতে চাই বাজারের সর্বশ্রেনী পেশার লোকজন। দেখা যায়,ঈদগাঁও বাজারের প্রধান ডিসি সড়কসহ অলিগলির উপ সড়কগুলো সংকীর্ণতায় ভরে গেছে। ব্যবসায়ীরা তাদের দোকানের সামনে উপভাড়া। লোকজনসহ যান চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি করেছে। সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা বলে অভিযোগ পথচারীদের রিক্সার পাশাপাশি যন্ত্রচালিত এসব লাইসেন্স বিহীন তিন চাকার যানবাহনও চলছে সমান তালে। আবার অদক্ষও আনাড়ী চালক। নীতিমালার সীমাবদ্ধতার অজুহাতে এ গুলো নিয়ন্ত্রণের দায়দায়িত্ব নিতে চায়না সংশ্লিষ্টরা। ভয়, দ্বিধা-দ্বন্ধ ছাড়া রাস্তায় দূরন্ত বেগে ছুটে যাওয়া ব্যাটারী চালিত যানবাহনে বেড়ে চলছে প্রায়শ দূর্ঘটনা। ব্যাটারী চালিত গাড়ী সড়কে চলে অনেকটা দূর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে। বিদ্যুৎ চালিত অটো রিক্সার পাল যেন বৃহত্তর এলাকার প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলের আনাছে কানাছে। যত্রতত্র স্থানে যানবাহনের কারনে একের পর এক যানজট লেগেই থাকে। যাতে করে অসহায় লোক জনের দুর্ভোগ আর দূর্গতি যেন রক্ষা পাচ্ছেনা কোন ভাবে। ইমরানসহ কজন সচেতন লোকজন জানান,ছোট যানবাহনের কারনে যানজট সৃষ্টি হওয়ায় সড়ক-উপসড়ক বা বাজারে পায়ে হেটে চলাচল অনেকটা দায় হয়ে পড়ে। ঈদগাঁও ষ্টেশন,হাইস্কুল পয়েন্ট ভূমি অফিস,শাপলা চত্তরে ট্রাফিক ব্যবস্থা জোরদার করলে হয়তো যানজট থেকে মুক্তি পেতে পারে বাজারমুখী লোকজন। ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের যুগ্ন সম্পাদক হাসান তারেক জানান, দ্রুত সময়ে সব সমস্যার সমাধান হতে যাচ্ছে।