করোনা’র প্রতিষেধক ফ্রিতে বিতরণ করবেন ঈদগাহ কেজি স্কুলের সহঃ শিক্ষক সাহাব উদ্দিন

প্রকাশিত: ৭:৪৬ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২০

নিউজ ডেস্ক:

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে হোমিওপ্যাথিক ঔষধ সম্প্রতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালের হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত ৪৮ জন করোনা রোগী পজিটিভ থেকে নেগেটিভ হয়েছে।

এর আগে স্বামীবাগে হোমিওপ্যাথিক ঔষধে সুস্থ হয়েছেন ৩৫ পুরোহিত।

এবং সারা বাংলাদেশের হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকদের চিকিৎসায় ভালো হচ্ছেন করোনা সাসপেক্টেড এবং করোনা পজিটিভ রোগী।

হোমিওপ্যাথিতে করোনা ভাইরাসের মূলত দুইভাবে চিকিৎসা দেওয়া যায়।

১. যাদের করোনা হয় নাই (সুস্থ অবস্থায়?) তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে বা ইমিউন বুস্টার বা হোমিওপ্যাথিক প্রোফাইলেকটিক হিসেবে।

২. করোনা পজিটিভ রোগীতে হোমিওপ্যাথিক ঔষধের লক্ষ্মণ ভিত্তিক চিকিৎসা।
লক্ষ্মণ ভিত্তিক কয়েকটি ঔষধ যেমন : ব্রায়োনিয়া এলবা, আর্সেনিকাম এলবাম, জেলসিমিয়াম, রাস টক্স, ক্যাম্পর এবং কার্বো ভেজ।

প্রোফাইলেকটিক হিসেবে বাংলাদেশের ১৭ কোটি মানুষকে হোমিওপ্যাথিক ঔষধ খাওয়ানো যায় তবে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ সম্ভব।

আর করোনা ইউনিটগুলোতে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক নিয়োগ দিয়ে করোনা ভাইরাসের লক্ষ্মণ ভিত্তিক চিকিৎসা দিয়ে মৃত্যু নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক বোর্ডের নির্দেশনা অনুসারে
হোমিওপ্যাথিক প্রোফাইলেকটিক হিসেবে “আর্সেনিকাম এলবাম ৩০” সেবনের নিয়মটা বলছি। সকলে সেবন করুন সুস্থ থাকুন করোনাকে দেশ থেকে বিতাড়িত করুন।

দুইভাবে ঔষধটা সেবন করতে পারেন-
১. গ্লোবিউল্স।
২. লিকুইড। আমি ২টা নিয়মই বলছি –

*গ্লোবিউল্স একড্রাম ৩০নং বড়িতে ঔষধটা বানিয়ে নিলে, সকালে খালীপেটে বড়রা ৪টা পিল সেবন করবেন পরপর ৩দিন। বাচ্চাদের ২টা পিল দিবেন।

*লিকুইড ঔষধ হলে সকালে খালীপেটে ২ঢোক পরিমান পানিসহ ১ফোঁটা ঔষধ সেবন করবেন পরপর ৩দিন। বাচ্চাদের এক ফোঁটা ঔষধ ২ঢোক পানিতে মিশিয়ে এক ঢোক পরিমান সেবন করাবেন বাকীটা ফেলে দিবেন।

প্রতি এক মাস অন্তর অন্তর এভাবে সেবন করবেন যতদিন করোনা মহামারি থাকে।
জানা যায়, সাহাব উদ্দিন দি রয়েল ফাউন্ডেশ, খুলনা থেকে
এল,এইচ,এম,পি ২ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমাটি কমপ্লিট করেছেন।
বর্তমানে, আজিজুর রহমান হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে ডি,এইচ,এম,এস,৪র্থ বর্ষে অধ্যয়নরত।
এছাড়াও, তিনি স্থানীয় ক্লিনিকে এক বছর শিক্ষানবিস ছিলেন।

বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে করোনা’র প্রতিষেধক ফ্রি বিতরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিস্তারিত জানার জন্য সাহাব উদ্দিনের মুঠোফোন সংযুক্ত করেছেন ০১৮১৮৯৯৮৯৯৫।