ইসলামা‌বা‌দে ম‌হিলা মেম্বার ফ‌রিদা ইয়াস‌মি‌নের অ‌নিয়ম ও দূর্নীতিঃ পর্ব-০১

প্রকাশিত: ৭:৪৬ অপরাহ্ণ, জুন ৭, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কক্সবাজার সদ‌রের ইসলামাবাদ ইউ‌পির ম‌হিলা সদস‌্য ফ‌রিদা ইয়াস‌মিনের নানা কু-কী‌র্তি ও অ‌নিয়‌মের বেড়াজা‌লে বন্দী ৪,৫,৬ নং ওয়া‌র্ডের জন সাধারন।

তি‌নি একাধা‌রে বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, ওএমএস চা‌লের কার্ড এবং প‌রিষ‌দের সরকা‌রি বরা‌দ্দে অস্বাভা‌বিক অ‌নিয়ম ও দূর্নী‌তি কর‌ছে ব‌লে নির্ভর‌যোগ‌্য সূ‌ত্রে অ‌ভি‌যোগ পাওয়া গে‌ছে। তি‌নি মোটা অং‌কের টাকার বি‌নিম‌য়ে গ্রা‌মের অ‌শি‌ক্ষিত ও খে‌টে খাওয়া নিম্ন শ্রেণীর পেশার মানুষ‌দের‌কে বি‌ভিন্ন ভাতার কার্ড বি‌ক্রি কর‌ছে ! তার ম‌ধ্যে অ‌ধিকাংশজনই টাকা দি‌য়েও কাঙ্খিত তা‌লিকা থে‌কে ব‌ঞ্চিত হ‌চ্ছে ব‌লেও অ‌ভি‌যোগ পাওয়া গে‌ছে।

নাম প্রকা‌শে অ‌নিচ্ছুক সমা‌জের এক গণ‌্যমান‌্য ব‌্যক্তি প্রতি‌বেক‌কে ব‌লেন, ম‌হিলা মেম্বার কার্ড ক‌রে দি‌বে ব‌লে মোটা অং‌কের টাকা হা‌তি‌য়ে নি‌চ্ছে। বয়স্ক ভাতার জ‌ন্যে ৪৫০০ থে‌কে ৫০০০ টাকা, বিধবা ভাতার জ‌ন্যে ৩০০০ টাকা এবং ওএমএস কার্ডের জ‌ন্যে ২২০০ টাকা ক‌রে নি‌চ্ছেন তি‌নি। অ‌নেক ক্ষে‌ত্রে বেশ ক‌য়েকজন মুর‌ব্বি‌কে মাধ‌্যম হি‌সে‌বে ব‌্যবহার ক‌রে নামমাত্র ক‌মিশ‌ন দি‌য়েও মোটা অং‌কের টাকা হা‌তি‌য়ে নি‌চ্ছে !

এ ব‌্যপা‌রে ম‌হিলা মেম্বা‌রের সা‌থে ফো‌নে কথা হ‌লে প্রথ‌মে তি‌নি অস্বীকার ক‌রেন কিন্তু পরবর্তী‌তে স্বীকার ক‌রে যা‌দের থে‌কে টাকা নেওয়া হ‌য়ে‌ছে তা‌দের‌কে অবশ‌্যই সং‌শ্লিষ্ট তা‌লিকায় অন্তর্ভুক্ত করার কথা ব‌লেন। আর তি‌নি আ‌রো ব‌লেন তার নেওয়া টাকাটা না‌কি বি‌ভিন্ন স্ত‌রে খরচ কর‌তে হয়, তি‌নি না‌কি শেষ পর্যন্ত একটাকাও পান না !