আইসিইউ না থাকায় রোগীর মৃত্যুতে স্বজনদের তোলপাড়

আইসিইউ না থাকায় রোগীর মৃত্যুতে স্বজনদের তোলপাড়

প্রকাশিত: ১২:১৪ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (কুমেক) একটি ভবনে স্থাপিত কোভিড-১৯ স্থাপনায় তাৎক্ষণিক আইসিইউ-র সুবিধা না পেয়ে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

ঘটনা জানাজানির পর রোগীর স্বজনেরা হাসপাতালে ভাঙচুর করে এবং অক্সিজেনের লাইন কেঁটে এক জঘন্য পরিস্থিতি তৈরি করে। পরে অন্যান্য রোগীদের স্বজনরা সেই তিনজনকে পুলিশে সোপর্দ করে।

কুমেক – এ আইসিইউ-র শয্যা রয়েছে ১০ টি আর সেগুলোতে আগে থেকেই রোগী ভর্তি আছে বলে জানান হসপিটালের পরিচালক মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান।

চৌদ্দগ্রামের রোগীর স্বজনেরা রোগীকে নিয়ে পিপিই পড়ে হাসপাতালের আইসিইউতে ঢুকে যাওয়ায় হসপিটালের কর্মচারী ও ডাক্তাররা ভেবেছিলেন কোভিড – ১৯ হসপিটালের লোকজনেরাই ঢুকতে দিয়েছেন। পরে রোগী মারা গেলে তারা ভাঙচুর ও মারপিট শুরু করে দেন। মারপিট করা লোকেদের বাবা মারা যাবার কারনে মানবিক দিক বিবেচনা করে ছেড়ে দেন। এমনকি তাদের নামে কোন অভিযোগও দায়ের করা হয়নি।

গত ৩ জুন ১৫৪ শয্যার কোভিড-১৯ হসপিটালের উদ্বোধন করা হয়। যার মধ্যে ১৩৪ শয্যায় অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা আছে। ১০ শয্যার আইসিইউতে ১০ শয্যার রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে এই হসপিটালের কোন স্থানে সিসিটিভি স্থাপন করা হয়নি।