নওগাঁর আত্রাইয়ে গৃহবধূর মৃত্যু নিয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি!

মাহবুবুজ্জামান সেতু, নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে সাদিয়া বিবি (১৯) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় নিহত সাদিয়া বিবির স্বামী ও তার পরিবার  লাশটি হাসপাতালে ফেলে পালিয়ে গেছে বলে জানা যায়।

পুলিশ আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে প্রেরণ করেছে। নিহত সাদিয়া রাণীনগর উপজেলার হরিশপুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের মেয়ে । 

মেয়ের পরিবার সূত্রে জানা যায়,  বুধবার  সকাল ১০ টায় নিহত সাদিয়ার স্বামী রায়হানের ছোট ভাই ফোন করে মেয়ের বাবা সাইফুল ইসলামকে  জানায় আপনার মেয়ে বিষ পান করেছে। 

আপনি এলাকার মেম্বার ও মাতবরদের কে নিয়ে দ্রুত আত্রাই হাসপাতালে আসেন। এ সময় মেয়ের বাবা আত্রাই হাসপাতালে আসার পরে দেখতে পান তার মেয়েকে মৃত অবস্থায় রেখে জামাই ও তার পরিবার পালিয়ে গেছে। পরে আত্রাই থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে । 

নিহতের বাবা সাইফুল ইসলাম  জানান, গত এক বছর পূর্বে আত্রাই উপজেলার দিঘা গ্রামের আব্দুল মজিদ কবিরাজের ছেলে রায়হান (২৫) এর সাথে আমার মেয়ের বিবাহ হয় । বিবাহের পর থেকেই তারা অামার মেয়েকে মারপিট করে  ও নির্যাতন করতো । 

ইতোপূর্বে সেসব মারপিটের ঘটনায় কয়েক দফা গ্রাম্য বৈঠকও হয়েছে। আমার ধারনা তারা আমার মেয়েকে হত্যা করে মুখে বিষ ঢেলে দিয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের  স্বামী রায়হান ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক থাকায় তাদের কোন বক্তব্য নেওয়া  সম্ভব হয়নি।

 আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোবারক হোসেন  জানান, নিহত সাদিয়া বিবির  লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট আসার পরে বোঝা যাবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা।



লেখাটি পঠিত হয়েছে 497 বার।